1. a.hossainmcj@gmail.com : Akter Hossain : Akter Hossain
  2. Gram.bangla@yahoo.com : bigboss : Tanjim
  3. billal.mcj1@gmail.com : Billal Hosen : Billal Hosen
  4. mdkutubcou@gmail.com : গ্রাম বাংলা ডেস্ক : গ্রাম বাংলা ডেস্ক
  5. sanymcj@gmail.com : GramBanglaBD : Gram Bangla
  6. muhaimin.mcj@yahoo.com : Gram Bangla : Muhaimin Noman
  7. mohiuddinrasel1922@gmail.com : Mohi Uddin Rasel : Mohi Uddin Rasel
  8. rayhan.mcj@gmail.com : Abu Bakar Rayhan : Abu Bakar Rayhan
ঘন কুয়াশায় নষ্ট হচ্ছে শাক-সবজি - দৈনিক গ্রাম বাংলা    
সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:৩৩ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
শীতে করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে, প্রস্তুতি নিন: প্রধানমন্ত্রী নিরপরাধ কাশ্মীরিদের হত্যা করে ক্ষমতার অপব্যবহার করা হয়েছে: ভারতীয় সেনাবাহিনী আমি জানতাম না সেখানে মসজিদ রয়েছে, ক্ষমাপ্রার্থী : মুনমুন মসজিদে বিস্ফোরণে আরেক মুসল্লির মৃত্যু, সংখ্যা বেড়ে ৩২ আহমদ শফীর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক আহমদ শফীর মরদেহ হাটহাজারীতে, বাদ জোহর জানাজার পর দাফন ধর্ষণকারীকে মৃত্যুদন্ড বা নুপংসক করে দেবে নাইজেরিয়ান সরকার জাপানের নতুন প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন নোবেল শান্তির জন্য মনোনীত বাংলাদেশি চিকিৎসক রুহুল আবিদ তুরস্কের রাষ্ট্রপতির সাথে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের বৈঠক
 

ঘন কুয়াশায় নষ্ট হচ্ছে শাক-সবজি

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ২২৬ বার পঠিত

কৃষি ডেস্ক: 

ঘন কুয়াশায় নষ্ট হচ্ছে কৃষকের লাউ, করলা, মিষ্টি কুমড়া, আলু, শাক-সবজিসহ বিভিন্ন ফসল। ফসল রক্ষায় সার ও কীটনাশক ব্যবহার করে কোননও কাজে আসছে না। দুশ্চিন্তা আর হতাশায় দিন কাটছে জেলার কৃষকদের। তবে কৃষি বিভাগ থেকে বলছে, বৈরি আবহাওয়ায় রবি ফসল রক্ষায় প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

গাইবান্ধা জেলার ৭ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় এবার আলু, লাউ, বেগুন, মরিচ, করলাসহ বিভিন্ন রবি ফসল চাষ করেছেন কৃষকরা। তীব্র শীতের সাথে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি আর ঘন কুয়াশায় কৃষকের ফসল নষ্ট হচ্ছে। নষ্ট ফসল বাঁচাতে কয়েক দফা কীটনাশক প্রয়োগ করেও লাভ হচ্ছেনা।

কৃষি বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, এ বছর গাইবান্ধা জেলায় চলতি রবি মৌসুমে ৯ হাজার হেক্টর জমিতে আলু আর ৭ হাজার হেক্টর জমিতে শীতকালীন শাক-সবজির চাষ হয়।

স্থানীয়রা জানান, গেল মৌসুমে ধানের ন্যায্য মূল্য না পেয়ে এবার আশার আলো নিয়ে শত শত বিঘা জমিতে আলু চাষ করে কৃষক। বৈরি আবহাওয়ায় তা নষ্ট হওয়ার উপক্রম হয়েছে। আলুর পাতা কুচকে যাওয়া সাথে দেখা দিয়েছে পচনজনিত রোগ। এ অবস্থায় কৃষি বিভাগের কোনো পরামর্শ কিংবা সাহায্য পান না বলে অভিযোগ কৃষকদের।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..