1. a.hossainmcj@gmail.com : Akter Hossain : Akter Hossain
  2. Gram.bangla@yahoo.com : bigboss : Tanjim
  3. billal.mcj1@gmail.com : Billal Hosen : Billal Hosen
  4. mdkutubcou@gmail.com : গ্রাম বাংলা : গ্রাম বাংলা ডেস্ক
  5. sanymcj@gmail.com : GramBanglaBD : Gram Bangla
  6. muhaimin.mcj@yahoo.com : Gram Bangla : Muhaimin Noman
  7. mohiuddinrasel1922@gmail.com : Mohi Uddin Rasel : Mohi Uddin Rasel
  8. rayhan.mcj@gmail.com : Abu Bakar Rayhan : Abu Bakar Rayhan
বাংলাদেশি ডাক্তার ভ্যাকসিন আবিষ্কার করলেনও, কাঁদলেনও - দৈনিক গ্রাম বাংলা    
বুধবার, ১২ অগাস্ট ২০২০, ০৬:৫২ পূর্বাহ্ন

বাংলাদেশি ডাক্তার ভ্যাকসিন আবিষ্কার করলেনও, কাঁদলেনও

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৩ জুলাই, ২০২০
  • ৯৬০ বার পঠিত

ডেস্ক রিপোর্ট:

করোনা ভাইরাসের কাছে বর্তমানে অসহায় হয়ে গেছে গোটা বিশ্ব। এই মহামারিতে সময়ে সময়ে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। গত পাঁচ মাসের বেশি সময় ধরে ভাইরাসটি প্রাণ কেড়ে নিয়েছে পাঁচ লাখেরও বেশি মানুষের। আক্রান্তও হয়েছে এক কোটির বেশি।

কোভিড-১৯ এর প্রতিষেধক আবিষ্কারের জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। এর মধ্যে অক্সফোর্ডের সম্ভাব্য ভ্যাকসিন সবচেয়ে এগিয়ে আছে বলে দাবি করা হয়েছে। কিন্তু গত সোমবার (২৯ জুন) চীন দাবি করেছে, চীন একটি সফল ভ্যাকসিন আবিষ্কার করেছে। ভ্যাকসিনটি এক বছরের জন্য তাদের সেনাবাহিনীর মধ্যে ব্যবহারের অনুমতি দেয়া হয়েছে।

এমন পরিস্থিতিতে এবার বাংলাদেশেও প্রথম করোনা ভাইরাসের টিকা (ভ্যাকসিন) আবিষ্কারের দাবি করেছে অন্যতম ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান গ্লোব বায়োটেক লিমিটেড।

বৃহস্পতিবার (০২ জুলাই) এক সংবাদ সম্মেলনে ভ্যাকসিন আবিষ্কারের ঘোষণা দিতে গিয়ে কাদলেন গ্লোব বায়োটেক লিমিটেডের রিসার্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ডিপার্টমেন্টের প্রধান ডা. আসিফ মাহমুদ। তাঁর কাদার ছবিটি এর মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। বাংলাদেশ থেকে এমনটি একটি ঘোষণা পেয়ে মানুষের প্রশংসায় ভাসছে গ্লোব বায়োটেক লিমিটেড।

গ্লোবের ড. আসিফ মাহমুদ

গ্লোব দাবি করেছে, তারা পশুর শরীরে এই ভ্যাকসিনের সফলতা পেয়েছে। মানবদেহে এর সফলতা পাওয়া সম্ভব বলে আশা করছেন তারা। গ্লোব বায়োটেক লিমিটেডের রিসার্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ডিপার্টমেন্টের প্রধান ডা. আসিফ মাহমুদ দেশের শীর্ষ বক্তব্যে দাবি করে বলেন, ‘আসলে আমরা কাজ শুরু করার পর প্রাথমিক ভাবে এটা নিয়ে সফল হয়েছি। প্রাণী মডেলে এটা সফল হয়েছে। এখন আমরা আশা করি মানবদেহেও এটা সফল কাজ করবে। আমরা বিষয়টি নিয়ে এখন সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কাছে যাব। এরপর তাদের দেওয়া গাইড লাইন অনুযায়ী পরবর্তী ধাপগুলো সম্পন্ন করবো৷’

সংবাদ সম্মেলনে প্রতিষ্ঠানটি থেকে জানানো হয়েছে, এনসিবিআই ভাইরাস ডাটাবেজ অনুযায়ী গত মঙ্গলবার (৩০ জুন) পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী ৫ হাজার ৭৪৩টি সম্পূর্ণ জিনোম সিকোয়েন্স জমা হয়েছে। যার মধ্যে বাংলাদেশ থেকে জমা হয়েছে ৭৬টির মত। উক্ত সিকোয়েন্স বায়োইনফরম্যাটিক্স টুলের মাধ্যমে পরীক্ষা করে গ্লোব বায়োটেক লিমিটেড তাদের টিকার টার্গেট নিশ্চিত করেছে। যা যৌক্তিকভাবে এই ভৌগোলিক অঞ্চলে অধিকতর কার্যকরী হবে বলে তারা আশা করছেন।

প্রতিষ্ঠানটি দাবি করেছে, উক্ত টার্গেটের সম্পূর্ণ কোডিং সিকোয়েন্সে যুক্তরাষ্ট্রের এনসিবিআই ভাইরাস ডাটাবেজে জমা দিয়েছেন যা এরমধ্যেই এনসিবিআই কর্তৃক স্বীকৃত ও প্রকাশিত হয়েছে। টিকা আবিষ্কারের বিষয়ে আরও বলা হয়েছে, গ্লোব বায়োটেক লিমিটেডের গবেষণাগারে আবিষ্কৃত টিকাটির বিশদ বিশ্লেষণের পর ল্যাবরেটরি এনিমেল মডেলে পরীক্ষামূলক ভাবে প্রয়োগ করে যথাযথ এন্টিবডি তৈরিতে সন্তোষজনক ফলাফল পেয়েছেন বলে তাদের দাবি।

বিষয়টি নিয়ে গ্লোব বায়োটেক লিমিটেডের চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‘এই টিকাটির সুরক্ষা ও কার্যকারিতা নিরীক্ষার লক্ষ্যে আমরা ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু করার জন্য কাজ করে যাচ্ছি। এই সুরক্ষা ও কার্যকারিতা পরীক্ষায় সরকারের সর্বাত্মক সহায়তা একান্তভাবে কামনা করছি।’

গ্লোব বায়োটেক লিমিটেডের এই ভ্যাকসিনের বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (হেলথ ইমারজেন্সি অপারেশন সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুম) ডা. আয়েশা আক্তার গণ মাধ্যমকে বলেন, ‘আমাদের এখনো এমন কোনো তথ্য জানানো হয়নি। নিয়ম অনুযায়ী তারা বিষয়টি অফিসিয়ালি চিঠি দিয়ে আমাদেরকে জানাবে। এরপর আমরা সেটা খতিয়ে দেখব।’

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..